আমাদের সেবাসমূহ

আমাদের কথা

বিশ্বের সবচেয়ে জনবহুল দেশগুলোর মধ্যে একটি আমাদের এই বাংলাদেশ । বিশ্বায়নের এই যুগে একদিকে যেমন দ্রুত বিস্তার লাভ করছে নগরায়ণ সেইসাথে কমে যাচ্ছে আবাদী জমি। দেশের আবাদী জমি ও দ্রুতবর্দ্ধনশীল নগরগুলোকে যদি আমরা পরিকল্পিত উপায়ে ব্যবহার করতে না পারি, তাহলে আমাদের খাদ্য নিরাপত্তার বিষয়টি মারাত্মক হুমকির  ‍মুখে পড়বে । বাংলাদেশের অধিকাংশ মানুষ এখনও তাদের প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় সুষম খাদ্যের বিষয়টিকে জ্ঞাত অথবা অজ্ঞাতসারে এড়িয়ে চলছে, আর যারা এটিকে গুরুত্ব দিচ্ছেন তারাও প্রতিদিন কি খাচ্ছেন সেটা তারা জানেন না । কারণ বাজার থেকে সুন্দর রঙয়ের আপাতদৃষ্টিতে যে পাকা ফলটি তিনি কিনেছেন তা আদৌও পরিপক্ক/গাছপাকা কিনা তা তিনি জানেন না । যে ফল বা সবজি তিনি দোকানদারের নিকট থেকে কিনেছেন হতে পারে সেটি কৃত্রিম উপায়ে ক্ষতিকারক রাসায়নিক পদার্থ দিয়ে পাকানো অথবা সংগ্রহের অল্পপূর্বে বিষাক্ত কীটনাশক দিয়ে স্প্রেকৃত । এসব ফলমূল ও সবজি খেলে দেহের উপকারের চেয়ে অপকার যে বেশি হবে সেটা সন্দেহাতীত।

আমরা যারা শহরাঞ্চলে বসবাস করি তাদের এই সমস্যাটা আরও প্রকট । এ থেকে পরিত্রাণের একটাই উপায় যাদের সুযোগ আছে তাদের অন্তত নিজের প্রয়োজনীয় ফলমূল ও শাকসবজি নিজেই আবাদ করা । এখন প্রশ্ন আসতে পারে শহরে এটা কিভাবে সম্ভব? এটা অবশ্যই সম্ভব যদি আমরা আমাদের বাড়ির ছাদগুলোকে একটু পরিকল্পিত উপায়ে ব্যবহার করি । বাংলাদেশের আবহাওয়া ও মাটি সারাবছরই বিভিন্ন ধরনের ফলমূল ও শাকসবজি উৎপাদনের জন্য অনুকূল । তাই আপনার ছাদ অথবা বাড়ির পাশে পরিত্যক্ত এক টুকরা জমিই হতে পারে আপনার প্রয়োজনীয় ফলমূল ও শাকসবজির উৎস । যা কিনা হবে সম্পূর্ণ রাসায়নিক ও বিষমুক্ত সতেজ তরতাজা । পাশাপাশি ফুল গাছ, বিভিন্ন ধরনের বাহারি গাছ অথবা বনসাঁই এর সমারহ আপনার এক চিলতে ছাদই হবে আপনার সৌন্দর্য পিপাসু মনের খোরাক, হতে পারে আপনার সময় কাটানোর মাধ্যম অথবা হতে পারে আপনার বাড়তি আয়ের উৎস।

তাই আসুন, আমরা সবাই ‍মিলে আমোদের ছাদগুলোকে বাগানে পরিণত করে ইট, কাঠ, কংক্রিটের শহরকে একটু ছায়া সুনিবিড় গ্রাম্য পরিবেশ দেই, শহরের অতিরিক্ত কার্বন ডাই অক্সাইডকে শোষনের ব্যবস্থা করে বৈশ্বিক উষ্ণতা রোধ করে পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা করি এবং রাসায়নিক ও বিষমুক্ত ফলমূল ও শাকসবজি  খেয়ে সুস্থ ও সবল থাকি।

আসুন, আর সময় নষ্ট না করে বাড়ির ছাদ ও বারান্দায় ফল ও সবজির চাষ শুরু করি।

ভাবছেন কিভাবে শুরু করবেন:
এ ভাবনাটা ছেড়ে দেন আমাদের উপর অর্থাৎ ‘অংকুরএগ্রো’-এর উপর। আমাদের রয়েছে দেশ বিদেশে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত বেশ কয়েকজন কৃষি বিশেষজ্ঞ। এছাড়া আরো রয়েছে প্রশিক্ষিত ও রাষ্ট্রীয় পুরস্কার প্রাপ্ত একঝাক কৃষক বাহিনী। যারা বিশেষজ্ঞ দলের পরামর্শে আপনার বাড়ির ছাদে, বারান্দায় বা বাড়ির সামনের পরিত্যক্ত জায়গায় ফল, সবজি বা ফুলের বাগানে তৈরীতে সার্বিকভাবে সহযোগিতা করবেন।

কোথায় ভাল চারা পাবেন:
আমাদের দেশের আনাচে কানাচে অনেক নার্সারি গড়ে উঠেছে। কিন্তু তাদের উৎপাদিত চারার মান নিয়ে রয়েছে নানান প্রশ্ন। তাই আপনারা যাতে সঠিক মানের চারা পেতে পারেন সে জন্য আমরা মান সম্পন্ন চারাও সরবরাহ করে থাকি। আমাদের উৎপাদিত গাছের চারা লাগালে আপনারা ১ বছরের মধ্যেই নিজের উৎপাদিত ফল ক্ষেতে পারবেন।

ডেইরী ফার্ম:
যাঁরা ইতিমধ্যে ডেইরী ফার্ম প্রতিষ্ঠা করেছেন কিন্তু লাভজনক পর্যায়ে নিয়ে যেতে পারছেন না, তাই হতাশ হয়ে ফার্ম তুলে দেয়ার চিন্তা করছেন। তাদের জন্যও রয়েছে বিশেষ প্যাকেজ। মাত্র ৩ (তিন) মাসের পর্যবেক্ষণ ও সহযোগিতায় আমরা আপনার অলাভজনক ফার্মটিকে লাভজনক পর্যায়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য যা যা করণীয় তার ব্যবস্থা করে দেব।

আর যাঁরা নতুন ডেইরী ফার্ম প্রতিষ্ঠা করতে চান, ভাবছেন কিভাবে শুরু করবেন? তাঁরাও আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। আমাদের রয়েছে একদল প্রশিক্ষিত ও বাস্তব অভিজ্ঞতা সম্পন্ন কর্মী বাহিনী, যারা আধুনিক পদ্ধতিতে ফার্ম প্রতিষ্ঠাকরণে সার্বিক সহযোগিতা করার জন্য রয়েছেন সদা প্রস্তুত।

মৎস চাষ:
যাঁরা আধুনিক পদ্ধতিতে ও বিজ্ঞান সম্মতভাবে মৎস খামার প্রতিষ্ঠা করতে চান তাঁরা অতি সত্ত্বর আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। মৎস বিভাগেও রয়েছে আমাদের একদল প্রশিক্ষিত ও বাস্তব অভিজ্ঞতা সম্পন্ন কর্মী বাহিনী, যারা মৎস প্রকল্প প্রতিষ্ঠাকরণে সার্বিক সহযোগিতা করতে পারবেন বলে আমরা দৃঢ় অঙ্গিকার ব্যক্ত করছি।

পরামর্শ সাহায্যের জন্য আজই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন।

সাম্প্রতিক প্রকাশনাসমূহ

সাম্প্রতিক লেখাসমূহ

বানিজ্যিকভাবে মাছচাষ ও বিপণন এর কলাকৌশল

বর্তমানে মৎস্যচাষ একটি অন্যতম লাভজনক পেশা। দেশের জনসংখ্যার শতকরা প্রায় ৮ শতাংশ এই পেশার সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িত। কিন্তু যথাযথ কারিগরি জ্ঞান, দক্ষতা ও ব্যবস্থাপনার অভাবে প্রায়শঃ এ থেকে কাঙ্খিত মুনাফা অর্জিত হয় না। এই পেশায় অধিকতর মুনাফা…

ছাদে বারমাসী আমড়ার চাষ

আমাদের দেশে আমড়া একটি খুবই পরিচিত এবং জনপ্রিয় একটি ফলের নাম । বর্ষাকালে জার্নিতে বরিশালের আমড়া আমড়া হাক ডাক শুনেনি এমন লোক বাংলাদেশে খুজে পাওয়া যাবে না । বরিশালের আমড়া বললেও মূলত পিরোজপুর জেলায় এর উৎপাদন বেশী হয়ে থাকে । অম্লস্বাদযুক্ত…

স্ট্রবেরি চাষ পদ্ধতি

ট্রবেরি চাষের এলাকা: শীতের দেশে স্ট্রবেরি ভালো হয়। গরমের দেশে গাছ হয় কিন্তু সহজে ফল হতে চায় না। কিন’ গবেষকদের প্রচেষ্টায় এদেশে পরীক্ষামূলকভাবে কিছু জাতের চাষ হচ্ছে। দেশের উত্তরাঞ্চলের কিছু জেলায় স্ট্রবেরি ফলানো সম্ভব হয়েছে। বিশেষ করে যেসব…

ছাদে আনার বা বেদানার চাষ পদ্ধতি

ডালিমের উন্নত জাতই হল আনার বা বেদানা । আনার বা বেদানা খুবই মিষ্টি এবং সুস্বাদু একটি ফল । বাংলাদেশের মাটি বেদানা চাষের উপযোগী । এ কারণেই বাংলাদেশের বসতবাটির আঙ্গিনায় এর চাষ পরিলক্ষিত হয় । আনার বা বেদানা একটি পুষ্টিকর ফল। আনার দিয়ে কবিরাজরা…

গড়ে তুলুন ডেইরি ফার্ম

বাংলাদেশে এখন সফল ডেইরি ফার্মের সংখ্যা অনেক। দিন দিন এর চাহিদা ও বাজার বাড়ছে। একদিকে যেমন এ থেকে আদর্শ খাবার হিসেবে দুধ, আমিষের চাহিদা মেটাতে মাংস এবং জ্বালানি হিসেবে গোবর ও জৈব সার পাওয়া যাবে, তেমনি অন্যদিকে এ খাত থেকে বেশ ভালো আয় করাও…